লক্ষ্মীপুরে অধ্যক্ষ এমএ সাত্তার ট্রাস্টের কর্মকান্ড নিয়ে ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় - সূর্য উদয়


লক্ষ্মীপুরে অধ্যক্ষ এমএ সাত্তার ট্রাস্টের কর্মকান্ড নিয়ে ফেসবুকে সমালোচনার ঝড়

0

সূর্য উদয় ডেস্ক: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ঢাকা মোহাম্মদপুর থানা সভাপতি,বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও অধ্যক্ষ এমএ সাত্তার ট্রাস্টের চেয়ারম্যান কে নিয়ে সম্প্রতি কালে নিজ ট্রাস্টের মাধ্যমে আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখ বিভিন্ন কর্মকান্ড চালাচ্ছেন।আর এ সব কর্মকান্ড নিয়ে লক্ষ্মীপুর ৩ আসনের সুশীল সমাজ সহ বিভিন্ন মহলের লোকজন নানা রকম মন্তব্য করছেন। সম্প্রতি লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে প্রায় অর্ধকোটি টাকা অনুদান ও প্রায় ১ হাজার লোক কে ভূরি ভোজন করান। এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেক আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। পাঠক দের জন্য মতামত গুলো হুবহুব তুলে ধরা হলো।

দলীয় মনোনয়নের তালিকায় চোখে পড়তে এম এ ছাত্তার ট্রাষ্টের প্রায় অর্ধ কোটি টাকা ব্যায়ে ভোজন? টাকা পেয়েও খাবার খেয়েও সন্তুষ্ট নয় জনগণ। অস্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে সমস্যায় ভুগছেন ।এক ব্যাক্তির এমন উক্তির পর,

মোঃ মাকসুদুর রহমান লিখেন, ভোট এলে এরা বাহির হয়, এর আগে এরা কই থাকে এরা তো বড় বড় কিছু নেতা ছিনে এবং কিছু নেতার নাম ও জানে এই ছাড়া এদের পুজি নাই আগে যনো সাধারণ সাথে মিশেন, তার পরে মাঠে নামেন।
মোঃ ওয়াহিদুর রহমান মুরাদ লিখেন,
ট্রাষ্ট? পলিটেকনিক আর মেডিকেল স্টুডেন্টসদের কাছ থেকে প্রতি বছর ভর্তি বানিজ্য থেকে শুরু করে কোর্স শেষ হওয়া পর্যন্ত গলাকাটা ব্যবসা চালিয়ে ট্রাস্ট বানিয়ে বনভোজন আর দান দক্ষিণা দেখাচ্ছেন।
রাকিব হোসেন লিখেন, একজন শিক্ষকের এতো টাকার উৎস কোথায়?
আব্দুল মাজেদ শফিক লিখেন,
সাত্তার ট্রাস্টের নামে চলছে রাজনৈতিক ফায়দা হাছিল!
রাশেদ জিলানী লিখেন, সেই সময় বেশি দূরে নয়।কিছ লোক ওয়াড়ে ঢুকবে আর অপমানিত হবে।
মোঃ এলাহি লিখেন, এই ট্রাষ্টের টাকার আয়ের উৎস কি?

রাশেদ নিজাম লিখেন, বিদেশ থেকে কুটি কুটি টাকা ট্রাষ্ট এর নামে বাংলাদেশে আনা হয় আবার সেগুলো নির্বাচনী প্রচারনার কাজে ব্যয় করা হয়।
আমাদের কিছু নেতা কর্মীরা সেসমস্ত টাকার পিছে ঘুরে বেড়ায়।

জুনায়েদ লক্ষ্মীপুর লিখেন, ট্রাস্টের টাকার উৎস কোথায়? খরচের খাত কিভাবে করে? খালেদা জিয়ার কথা কি জনাব ছাত্তারের মনে আছে ?

এছড়াও অনেক মূখরুচক মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেসে বেড়াচ্ছে।

Share.

Leave A Reply

Translate »